আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফের হাসপাতালে ভর্তি হলেন চন্দনার দ্বিতীয় স্বামী

chanda
শেয়ার করুন

দিন কয়েক আগেই হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছিলেন । এরই মধ্যে ফের হাসপাতালে ভর্তি বিজেপি বিধায়ক চন্দনা বাউড়ির ‘দ্বিতীয় স্বামী’ কৃষ্ণ কুণ্ড ৷

চন্দনাকে ছেড়ে একমুহূর্তও থাকতে পারছেন না তিনি ৷ তাঁর বিরহে দিনরাত মদ্যপান করে চলেছেন৷ এতটাই বেশি মদ্যপান করছেন যে তাঁকে ভর্তি করতে হল হাসপাতালে!

কিছু দিন আগে শোরগোল ফেলেছিল একটা খবর৷ জানা যায় নিজের স্বামী, সন্তানকে ছেড়ে গাড়ির চালিককে বিয়ে করেছেন রাজ্যের সবচেয়ে দরিদ্র বিধায়ক চন্দনা বাউড়ি৷ যদিও সে কথা অস্বীকার করেন তিনি৷ কিন্তু ঝুলি থেকে বেড়াল বেরিয়ে পড়েছে৷ দ্বিতীয় স্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ কৃষ্ণ কুণ্ডু৷ তিনি বলেন, ‘চন্দনা খুব ভালো মেয়ে। ওঁকে ভুল বোঝানো হচ্ছে। চন্দনার প্রথম স্বামী ভুল পথে নিয়ে যাচ্ছে ওঁকে৷’ এর আগেও সর্বসমক্ষে কৃষ্ণ বলেছিলেন, “মন্দিরে গিয়ে ভগবানকে সাক্ষী রেখে চন্দনাকে বিয়ে করেছি। তাঁর সঙ্গে সংসার করব। আমরা দু’জন একসঙ্গে পথ চলার শপথ নিয়েছি।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার ফের বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে চন্দনার গাড়ির চালক কৃষ্ণ ৷ হাসপাতালের বেডে শুয়েই তিনি হুঁশিয়ারি দেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সুভাষ সরকার এবং বিজেপি বিধায়ক সত্যনারায়ণ মুখোপাধ্যায়কে৷ তাঁর অভিযোগ, এই দুই নেতার জন্যেই নাকি চন্দনার সঙ্গে তাঁর দূরত্ব বাড়ছে৷ কিছুতেই মিলতে পারছেন না তাঁরা৷ এমনকী, তাঁদের মুখোশ খুলে দেওয়ার হুমকিও দেন চন্দনার ভালোবাসার পাগল ‘দেবদাস’ কৃষ্ণ৷

এদিকে অতিরিক্ত মদ্যপান করায় বমি শুরু হয় কৃষ্ণর ৷ সঙ্গে প্রবল মাথা যন্ত্রণায় কষ্ট পাচ্ছিলেন তিনি ৷ এর পরেই তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যান কৃষ্ণ কুণ্ডুর প্রথম পক্ষের স্ত্রী রুম্পা কুণ্ডু৷ তিনি জানান, জন্মাষ্টমীর দিন সকাল থেকেই শরীর খারাপ হতে শুরু করে কৃষ্ণর৷ এর পরেই মঙ্গবার তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ উল্লেখ্য, দিন সাত আগেই হাসপাতাল থেকে ফিরেছেন চন্দনার ‘দ্বিতীয় স্বামী’৷ ফের অসুস্থ হয়ে ফিরলেন হাসপাতালে৷

You may also like...