সরে দাড়াতে পারেন কোহলী । কোহলীর জায়গায় কি এবার রোহিত ?

সরে দাড়াতে পারেন কোহলী
শেয়ার করুন

ব্যাটিংয়ে আরও মনোযোগ দেওয়ার কারণে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পরেই সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অধিনায়কের পদ থেকে সরে দাঁড়াতে পারেন বিরাট কোহলী।

গত কয়েক মাস ধরেই নাকি এটা নিয়ে ভাবনাচিন্তা করছেন কোহলী। বোর্ডের কর্তাদের সঙ্গেও কথা বলেছেন। অস্ট্রেলিয়া সফরের পর থেকেই এই বিষয়ে ভাবছেন তিনি। রোহিতের সঙ্গে নাকি নিজে কথা বলেছেন। তারপরেই সংশয় দূর হয়েছে।

সরে দাড়াতে পারেন কোহলী । জল্পনা তুঙ্গে

“বিরাট নিজেই এই ঘোষণা করবে। ওর মতে, এই মুহূর্তে ব্যাটিংয়ে নজর দেওয়া আরও বেশি করে দরকার। ফের বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যান হয়ে ওঠার লক্ষ্যে যেটা করার দরকার সেটাই ও করবে।”

বোর্ডের এক সূত্র

রোহিত এবং কোহলীর মধ্যে যে সম্পর্ক মধুর নয়, এ কথা বহুচর্চিত। কিন্তু গত কয়েক মাসে নাকি দু’জনের বন্ধুত্ব যথেষ্ট গাঢ় হয়েছে। দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার আগে কোহলী নিজের লক্ষ্য এবং দলের ভবিষ্যতের ব্যাপারে একটা সুস্পষ্ট অভিমুখ ঠিক করে দিয়ে যেতে চান।

সামনের বছর ফের অস্ট্রেলিয়ায় হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তার পরের বছর দেশের মাটিতে ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ। এই দু’টি প্রতিযোগিতাকে পাখির চোখ করেছেন কোহলী। তিনি চান, এই দুটি প্রতিযোগিতায় নিজের সেরাটা উজাড় করে দিতে। ওই সূত্র বলেছেন, “সব ফরম্যাটে অধিনায়কত্ব করার প্রভাব যে ওর ব্যাটিংয়ে পড়ছে, এটা বিরাট বুঝতে পেরেছে। ও আরও তরতাজা এবং চাপহীন হয়ে নামতে হয়। কারণ ভারতকে এখনও অনেক কিছু দেওয়ার রয়েছে ওর।

যদি রোহিত সাদা বলের ক্রিকেটে নেতৃত্ব দেয়, তাহলে বিরাটের মাথা থেকে অনেকটাই চাপ কমে যাবে এবং ও পুরোপুরি নিজের ব্যাটিংয়ের উপর ফোকাস করতে পারবে। ওর বয়স মাত্র ৩২। যে ভাবে ফিটনেস নিয়ে ভাবে, তাতে জাতীয় দলের হয়ে এখনও অনায়াসে ৫-৬ বছর খেলতে পারে।”

প্রসঙ্গত, সাদা বলের ক্রিকেটে রোহিতকে অধিনায়ক করার দাবি অনেকদিন ধরেই উঠছে। আইপিএল-এ মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকে ৫ বার চ্যাম্পিয়ন করেছেন রোহিত। সেখানে কোহলীর নেতৃত্বে ১৩ বছরে এক বারও ট্রফি তুলতে পারেনি রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর।

You may also like...