কাশ্মীর নিয়ে কথা বলার অধিকার তাঁদের আছে’, ভারতের আশঙ্কা বাড়িয়ে মন্তব্য তালিবানের

taliban 21 25
শেয়ার করুন

আগের অবস্থান থেকে একশো আশি ডিগ্রি ঘুরে সংবাদ সংস্থাকে সাক্ষাৎকার তালিবান মুখপাত্রের

এর আগে ২৬ অগাস্ট তালিবানের আরেক মুখপাত্র জবিউল্লা মুজাহিদ বলেছিলেন, কাশ্মীর তালিবানের এক্তিয়ারের বাইরে। তিনি কাশ্মীরকে ভারতের অভ্যন্তরীণ ও ভারত-পাক দু’দেশের দ্বিপাক্ষিক বিষয় হিসেবে চিহ্নিত করেছিলেন। 

তালিবান মুখপাত্র বলেছিলেন, আফগানিস্তানের মাটি কোনও দেশের বিরুদ্ধেই ব্যবহার করা যাবে না। ভারত ও পাকিস্তানকে নিজদেরই নিজেদের সমস্যা মেটাতে হবে। কারণ তারা প্রত্যকেই প্রতিবেশী ও তাদের স্বার্থ পরস্পর সম্পর্কিত। যদিও বিদেশ মন্ত্রক তখন তালিবানের কথায় গুরুত্ব দেয়নি। কারণ, কিন্তু তালিবানের কথায় আর কাজে যে বিস্তর ফারাক রয়েছে, তা এই ক’দিনে বারবার প্রমাণিত হয়েছে। 

তালিবানের মুখপাত্র জবিদুল্লা মুজাহিদও সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমে দাবি করেন, পাকিস্তান তাঁদের সেকেন্ড হোম। আর কাশ্মীরে অশান্তি ছড়াতে পাকিস্তান যে তালিবানের দিকে তাকিয়ে, তা আরও স্পষ্ট হয়ে গেছে ইমরান খানের দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের নেত্রীর এই মন্তব্যের জেরে।

পাকিস্তান সরকার, পাকিস্তান সেনাবাহিনীর গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই, পাক জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদ, লস্কর-ই-তৈবা, হিজবুল মুজাহিদিন, হক্কানি জঙ্গি গোষ্ঠী এবং তালিবান একসঙ্গে হাত মেলালে তা আগামী দিনে ভারতের নিরাপত্তা এজেন্সিগুলির দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে বলে আশঙ্কা বিশেষজ্ঞদের। 

You may also like...